ঢাকা, রবিবার - ১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ইউক্রেনের প্রতি যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটোর সমর্থন থাকবে: বাইডেন

ছবিঃ সংগৃহীত

Share on facebook
Share on whatsapp
Share on twitter
Share on linkedin

ইউক্রেনের প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটোর সমর্থন থাকবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন জো বাইডেন।

মঙ্গলবার (২১ ফেব্রুয়ারি) ইউক্রেনের প্রতিবেশী দেশ পোল্যান্ডে এক ভাষণে এ ঘোষণা দেন বাইডেন।

যার কয়েক ঘণ্টা আগেই রাশিয়ার অভিজাত নাগরিক ও রাজনীতিবিদদের সামনে দেয়া এক দীর্ঘ বক্তৃতায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে পরমাণু অস্ত্র সীমিতকরণ চুক্তি স্থগিতের ঘোষণা দেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

বাইডেন বলেছেন, এক বছর আগে বিশ্ব কিয়েভের পতন দেখে ফেলেছিল। এখন আমি বলতে পারি, কিয়েভ শক্তভাবে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে, সবচেয়ে বড় কথা স্বাধীনভাবে দাঁড়িয়েছে।

আরও পড়ুন  পশ্চিমবঙ্গে পঞ্চায়েত নির্বাচন: সহিংসতায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৬

বাইডেন বলেছেন, স্বৈরশাসকরা কেবল একটি শব্দই বুঝতে পারে: ‘না, না, না!’

ন্যাটো আগের চেয়ে অনেক শক্তিশালী উল্লেখ করে বাইডেন বলেছেন, পুতিন ভেবেছিলেন বিশ্ব গুটিয়ে যাবে। তিনি ভুল ছিলেন।

ন্যাটো মিত্র এবং পোলিশ প্রেসিডেন্ট আন্দেজ ডুডার সঙ্গে সাক্ষাতের পরই এমন বক্তব্য দেন বাইডেন। কিয়েভের পক্ষে পশ্চিমা সমর্থন আদায়ে সোচ্চার প্রবক্তা এই ডুডা। পোল্যান্ডের নিরাপত্তা ও দেশটিতে ন্যাটোর শক্তিবৃদ্ধির ব্যাপারেও সাক্ষাতে আলোচনা হয়।

আরও পড়ুন  নুরের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলার আবেদন

গত সোমবার কিয়েভে আকস্মিক সফরের পর বাইডেনের এমন ঘোষণা এল। মার্কিন সামরিক বাহিনীর নিয়ন্ত্রণের বাইরে কোনো যুদ্ধাঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্রের কোনো প্রেসিডেন্টের সফর সাম্প্রতিক ইতিহাসে আর নেই। এ কারণেই সফরে বেশ গোপনীয়তা অবলম্বন করতে হয়েছে বাইডেনকে।

ন্যাটো সদস্য দেশগুলোর মধ্যে পোল্যান্ডের সঙ্গেই ইউক্রেনের সবচেয়ে লম্বা সীমান্ত রয়েছে। দেশটিতে অস্ত্র ঢোকানো কিংবা শরণার্থীদের বের করে আনার সবচেয়ে প্রধান পথ পোল্যান্ড সীমান্তই।

আরও পড়ুন  কানাডা ও চীনের মধ্যে কূটনীতিক দ্বন্দ্ব চরমে

বাইডেনের কয়েক ঘণ্টা আগে দেয়া ভাষণে পুতিন সংঘাত বৃদ্ধির জন্য পশ্চিমা বিশ্বের দিকে আঙুল তুলেছিলেন। কৌশলগত লক্ষ্য অর্জনের জন্য রাশিয়া ‘পরিকল্পিতভাবে’ লড়াই চালিয়ে যাবে বলেও ঘোষণা দিয়েছিলেন তিনি। রাশিয়ার বিরুদ্ধে দেয়া কঠোর নিষেধাজ্ঞা সফল হবে না বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

তথ্যসূত্র: বিবিসি – আল-জাজিরা।

ট্যাগঃ