ঢাকা, বুধবার - ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কাবুলে বাড়িতে ঢুকে সাবেক নারী এমপিসহ দেহরক্ষীকে গুলি করে হত্যা

ছবিঃ সংগৃহীত

Share on facebook
Share on whatsapp
Share on twitter
Share on linkedin

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে বাড়িতে ঢুকে সাবেক এক নারী এমপি এবং তার দেহরক্ষীকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির পুলিশ।

তালেবান ২০২১ সালের অগাস্টে আফগানিস্তানের ক্ষমতায় ফেরার পর হাতে গোণা যে কজন নারী এমপি বিদেশে পাড়ি না জমিয়ে দেশে থেকে গিয়েছিলেন, ৩২ বছর বয়সী মুরসাল নবীজাদা তাদের একজন বলে জানিয়েছে বিবিসি।

আরও পড়ুন  যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নে আগ্রহী চীন

রবিবার (১৫ জানুয়ারি) রাতে তার বাড়িতে ওই হামলায় তার ভাই এবং আরেক নিরাপত্তারক্ষী আহত হয়েছেন।

কাবুল পুলিশের মুখপাত্র খালিদ জাদরান বলছেন, নিরাপত্তা বাহিনী ‘গুরুত্ব দিয়ে’ এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

সাবেক সহকর্মীরা মুরসাল নবীজাদাকে ‘আফগানিস্তানের নির্ভীক চ্যাম্পিয়ন’ বলতেন, কারণ দেশ ছেড়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েও তিনি থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। তালেবান ক্ষমতায় ফেরার পর আবারও কঠোর নিয়মের বেড়াজালে কার্যত বন্দি করে ফেলা হয়েছে আফগান নারীদের। স্বাধীনভাবে পেশা নির্বাচন বা পড়ালেখা করার সুযোগ তাদের আর নেই।

আরও পড়ুন  গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার জন্যই যুক্তরাষ্ট্রের নতুন ভিসানীতি

আরেক সবেক এমপি মরিয়ম সোলাইমানখিল বলেছেন, নবীজাদা ছিলেন একজন দৃঢ়, স্পষ্টভাষী নারী, একজন ‘সত্যিকারের ছাপ রেখে যাওয়া’ মানুষ, যিনি বিপদের মুখেও নিজের বিশ্বাসের পক্ষে অটল ছিলেন। আফগানিস্তান ছেড়ে যাওয়ার সুযোগ পাওয়ার পরও তা তিনি নেননি, বরং দেশে থেকে মানুষের পক্ষে লড়াই চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।

পূর্বাঞ্চলীয় নানগারার প্রদেশের মেয়ে মুরসাল নবীজাদা ২০১৮ সালে কাবুল থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তালেবান ক্ষমতা দখলের আগ পর্যন্ত তিনি দায়িত্বে ছিলেন। সে সময় প্রতিরক্ষা বিষয়ক পার্লামেন্টারি কমিশনের সদস্য এবং মানব সম্পদ উন্নয়ন ও গবেষণা ইনস্টিটিউটেও তিনি কাজ করেছেন।

আরও পড়ুন  ঈদ শুভেচ্ছা জানালেন প্রধানমন্ত্রী

ট্যাগঃ

আলোচিত সংবাদ