ঢাকা, শুক্রবার - ১২ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

জজকোর্ট চত্বরে ককটেল বিস্ফোরণ

ছবি- সংগৃহীত

Share on facebook
Share on whatsapp
Share on twitter
Share on linkedin

ঢাকা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট উত্তেজনায় জজকোর্ট চত্বরে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) বিকালে ভোটগ্রহণ চলাকালে কোর্ট চত্বরে পরপর দুটি ককটেল বিস্ফোরিত হয়।

এদিন সকাল ৯টায় দ্বিতীয় দিনের মতো ঢাকা আইনজীবী সমিতির ২০২৪-২৫ সেশনের কার্যকরী কমিটির নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়। শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণের এক পর্যায়ের ব্যালট ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। পরে কিছু সময়ের জন্য ভোটগ্রহণ বন্ধ ঘোষণা করা হয়। এরপর পুনরায় ভোটগ্রহণ শুরু হলে এই ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনাটি ঘটে।

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে করণীয় নিয়ে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি জরুরি মিটিংয়ে বসেছে বলে জানিয়েছে একাধিক সূত্র।

এর আগে দুপুরে জাল ভোট দেওয়ার অভিযোগ এনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত বর্তমান কমিটির নেতারা ভোট কেন্দ্রে এসে জোরপূর্বক ভোটগ্রহণ স্থগিত করান বলে অভিযোগ করেন বিএনপিপন্থি আইনজীবীরা। এ সময় ব্যালট ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। পরে ভোটগ্রহণ সাময়িকভাবে স্থগিত করা হয়।

আরও পড়ুন  ঢাকা-দিল্লী বৈঠক ‘ফলপ্রসূ’

ঘটনায় সময় হাতাহাতি-ঠেলাঠেলিতে বিএনপি সমর্থিত কয়েকজন আইনজীবী আহত হয়েছেন বলেও জানান তারা। নির্বাচনে মোট ভোটার ২১ হাজার ১৩৭ জন। এর মধ্যে প্রথম দিন বুধবার চার হাজার ১৩০ জন ভোট দেন।

নির্বাচনে আওয়ামী লীগপন্থি বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ সমর্থিত সাদা প্যানেল ও বিএনপি-জামায়াতপন্থি জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেল সমর্থিত নীল প্যানেলের মধ্যে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে।

সাদা প্যানেল থেকে সভাপতি পদে আবদুর রহমান হাওলাদার ও সাধারণ সম্পাদক পদে মো. আনোয়ার শাহাদাত শাওন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। অন্যদিকে নীল প্যানেল থেকে সভাপতি পদে খোরশেদ মিয়া আলম ও সাধারণ সম্পাদক পদে লড়ছেন সৈয়দ নজরুল ইসলাম।

এছাড়া সাদা প্যানেল থেকে সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে আবুল কালাম মোহাম্মদ আক্তার হোসেন, সহ-সভাপতি পদে মো. আবু তৈয়ব, অর্থ সম্পাদক পদে মো. ওমর ফারুক, সিনিয়র সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে মো. মাসরাত আলী তুহিন, সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে আসাদুজ্জামান বাবু, লাইব্রেরি সম্পাদক পদে হুমায়ূন কবির সবুজ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে মনিরা বেগম মনি, দপ্তর সম্পাদক পদে সরোয়ার জাহান, ক্রীড়া সম্পাদক পদে মো. ওয়াকিলুর রহমান, সমাজকল্যাণ সম্পাদক পদে প্রদীপ চন্দ্র সরকার, তথ্য ও যোগাযোগ সম্পাদক পদে সৈয়দা ফরিদা ইয়াসমিন জেসী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

আরও পড়ুন  ইরফান সেলিমের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

এছাড়াও এই প্যানেল থেকে কার্যনির্বাহী সদস্য পদে মাহমুদুল হাসান, মোহাম্মদ মহসিন উদ্দিন, এমদাদুল হক এমদাদ, হাফিজ আল মামুন, কাজী হুমায়ূন কবির, মো. ইমরান হাসান, শাহীন আহমেদ, সুমন আহমেদ, মো. আব্দুর রহমান মিয়া ও মো. মঈনুদ্দিন মিয়া প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

অন্যদিকে নীল প্যানেল থেকে সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে মোহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক, সহ-সভাপতি পদে মোহাম্মদ শহীদুজ্জামান, অর্থ সম্পাদক পদে আব্দুর রশিদ মোল্লা, সিনিয়র সহ-সম্পাদক পদে মোহাম্মদ জহুরুল হাসান মুকুল, সহ-সম্পাদক পদে সৈয়দ মোহাম্মদ মাইনুল হাসান (অপু), লাইব্রেরি সম্পাদক পদে মিসেস নার্গিস প্রধান (মুক্তি), সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে নুরজাহান বেগম বিউটি, দপ্তর সম্পাদক পদে মোহাম্মদ আনোয়ারুল ইসলাম, ক্রীড়া সম্পাদক পদে মো. মোবারক হোসাইন, সমাজকল্যাণ সম্পাদক পদে মাহবুব হাসান (রানা) এবং তথ্য ও যোগাযোগ সম্পাদক পদে মোহাম্মদ ইসলাম মারুফ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

আরও পড়ুন  হাসিনা-মোদি উদ্বোধন করলেন মৈত্রী তেল পাইপলাইন

এই প্যানেল থেকে কার্যনির্বাহী সদস্য পদে লড়ছেন আলী মর্তুজা, গাজী তানজিল আহমেদ, মো. আনোয়ার হোসাইন চাঁদ, মো. আরিফ, মো. জাবেদ হোসাইন, মো. খলিলুর রহমান, মোহাম্মদ আলী (বাবু), মুক্তা বেগম, মো. শহীদুজ্জামান দিপু, রেজাউল হক রিয়াজ।