ঢাকা, শনিবার - ১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আলোচিত সংবাদ

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন স্থগিতের দাবি জানিয়েছে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ

ছবিঃ সংগৃহীত

Share on facebook
Share on whatsapp
Share on twitter
Share on linkedin

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন স্থগিত করার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ। আইনটি যুগোপযোগীভাবে সংশোধনের দাবিও জানায় সংগঠনটি।

শনিবার (১ এপ্রিল) বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গতকাল শনিবার হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের কার্যনির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন স্থগিতের দাবি জানানো হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেছেন ঐক্য পরিষদের সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য ঊষাতন তালুকদার।

আরও পড়ুন  সারা বিশ্বে হিন্দুদের গর্বিত করেছে মরিশাস

এতে আরও বলা হয়েছে, ঐক্য পরিষদের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অব্যাহত অপপ্রয়োগের মধ্য দিয়ে ধর্মীয় ও জাতিগত সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে অবর্ণনীয় হয়রানি ও দুর্দশার মুখোমুখি করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। এ আইনের যুগোপযোগী সংশোধনী না আনা পর্যন্ত তা স্থগিত রাখার জোর দাবি জানানো হয়।

সভার বিষয়ে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রানা দাশগুপ্ত বলেন, ‘ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট হওয়ার পর থেকে বেআইনিভাবে সংখ্যালঘু অনেক মানুষকে আটক করা হয়েছে। তাদের জেলে রাখা হয়েছে। ফেসবুকে মহানবীকে কটূক্তি করার ভুয়া পোস্টিং দেখিয়ে ইচ্ছাকৃতভাবে গুজব ছড়ানো হয়েছে। এরপর হিন্দুপল্লীতে একযোগে আক্রমণ করা হয়েছে, তাদের ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দেয়া হয়েছে। তারপর দেশের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের অনেক মানুষকে এ আইনে আটক করা হয়েছে। কিন্তু যারা ফেসবুক হ্যাক করে গুজব ছড়িয়েছে তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করতে দেখা যায়নি। আমাদের ৬০ জনেরও বেশি ছেলে  পাঁচ-সাত বছর  ধরে জেল খাটছে। এ ছেলেদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্টের অপপ্রয়োগ চলছে। দ্রুত এ আইন স্থগিত করে তা সংশোধনের দাবি জানানো হয়েছে সভা থেকে।

আরও পড়ুন  চিনি নিয়ে ছিনিমিনি

ট্যাগঃ

আলোচিত সংবাদ