ঢাকা, রবিবার - ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

দক্ষিণ এশিয়ার দ্বিতীয় ব্যয়বহুল শহর ঢাকা

ছবি- সংগৃহীত

Share on facebook
Share on whatsapp
Share on twitter
Share on linkedin

দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহর ভারতের মুম্বাই। আর দ্বিতীয় ব্যয়বহুল শহর হলো ঢাকা। সম্প্রতি প্রকাশিত যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কভিত্তিক অর্থনৈতিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান মার্সারের ‘মার্সার কস্ট অব লিভিং সার্ভে-২০২৪’ শীর্ষক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে।

প্রতিবছর বিদেশিদের জন্য বিশ্বের কোন শহরগুলো কতটা ব্যয়বহুল, সেই তালিকা প্রকাশ করে মার্সার।

২০২৪ সালের তালিকায় দেখা গেছে, বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহর হংকং। এরপর পর্যায়ক্রমে ব্যয়বহুল শহরগুলো হলো—সিঙ্গাপুর, সুইজারল্যান্ডের জুরিখ, জেনেভা, বাসেল, বার্ন, যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক, যুক্তরাজ্যের লন্ডন, বাহামা দ্বীপপুঞ্জের নাসাউ এবং যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেস।

আরও পড়ুন  'মোখা' মোকাবিলায় চট্টগ্রাম

এই তালিকায় ১৪০তম অবস্থান ঢাকার। যা দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে দ্বিতীয় ব্যয়বহুল শহর। গত বছর এই তালিকায় ঢাকার অবস্থান ছিল ১৫৪ নম্বরে। সেই হিসাবে এবার ঢাকা ১৪ ধাপ এগিয়েছে। তালিকার ১৩৬ নম্বরে জায়গা করে নিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে প্রথম হয়েছে মুম্বাই। এ বছরের তালিকায় ভারতের আরও বেশ কয়েকটি শহর স্থান পেয়েছে। দিল্লির অবস্থান ১৬৫তম, চেন্নাই ১৮৯তম, বেঙ্গালুরু ১৯৫তম, হায়দরাবাদ ২০২তম, পুনে ২০৫তম, কলকাতা ২০৭তম।

আরও পড়ুন  বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ, বজ্রসহ বৃষ্টির পূর্বাভাস

আর দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশের শহরের মধ্যে শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বো ১৯০তম। এদিকে পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদের অবস্থান ২২৪তম। তবে বিশ্বের ২২৬টি শহর নিয়ে করা এই তালিকায় নেই এশিয়ার আফগানিস্তান, ভুটান, মালদ্বীপ ও নেপালের কোনো শহরের নাম।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানায়, বিশ্বের ২২৬টি শহরের অন্তত ২০০ বিষয়কে বিবেচনায় নিয়ে এই তালিকা প্রস্তুত করেছে মার্কিন ফিন্যান্সিয়াল সার্ভে কোম্পানি মার্সার। বিবেচনার বিষয়গুলোর মধ্যে রয়েছে-পরিবহন, খাদ্য, পোশাক, গৃহস্থালি সামগ্রী ও বিনোদনের পেছনে ব্যয়।

আরও পড়ুন  বিশ্বের দীর্ঘতম মেয়াদের নারী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা: সিএনএন