ঢাকা, বুধবার - ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ধর্ষণের অভিযোগ তুলে বাপ-ছেলেকে অমানবিক নির্যাতন, গ্রেপ্তার ১

ছবিঃ সংগৃহীত

Share on facebook
Share on whatsapp
Share on twitter
Share on linkedin

ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলায় এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ তুলে একটি স্কুলের শ্রেণিকক্ষে আটকে ১৫ বছর বয়সী এক কিশোর ও তার বাবাকে অমানবিক নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

এ নির্যাতনের ঘটনায় জড়িত অভিযোগে মো. কুতুবউদ্দিন (২৫) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রবিবার (২৬ মার্চ) সকাল ৯টার দিকে মধুখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম প্রধান অভিযুক্ত ওই যুবককে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন  ঈদের দিন না ফেরার দেশে রাউজানের তরুণ ফয়সাল

ওসি শহিদুল জানান, শুক্রবার (১৭ মার্চ) দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ তুলে স্থানীয় একটি স্কুলের শ্রেণিকক্ষে আটকে নির্যাতনের অভিযোগে সোমবার (২০ মার্চ) মধুখালী থানায় একটি মামলা করা হয়। পরে এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক প্রধান অভিযুক্ত কুতুবউদ্দিন নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি জড়িতদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নির্যাতনের শিকার ওই কিশোরের পরিবার উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের মাঝকান্দি এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় থাকেন। তাদের গ্রামের বাড়ি মাগুরাতে। ওই কিশোর ও তার বাবা পৃথক দুটি জুট মিলে শ্রমিকের কাজ করেন। কিশোরের মা প্রবাসে রয়েছেন। যৌন নির্যাতনের অভিযোগ ওঠা শিশু তার সৎবোন।

আরও পড়ুন  ডাচ-বাংলার টাকা ছিনতাইয়ের মূল হোতা সোহেল গ্রেপ্তার

স্থানীয়দের অভিযোগ, ওই শিশুকে যৌন নির্যাতন করে আসছেন বাবা-ছেলে। এমন অভিযোগের সূত্র ধরেই তাদের স্থানীয় একটি স্কুলের শ্রেণিকক্ষে আটকে কয়েকজন মিলে অমানবিক নির্যাতন করেন। নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হলে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে।

এ ব্যাপারে মধুখালী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, শিগগিরই এ ব্যাপারে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। এ ঘটনায় ওই স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সদস্যরা ও শিক্ষকরা জড়িত আছে কি না, সেটা খতিয়ে দেখা হবে।

আরও পড়ুন  ছাত্রলীগের কমিটিতে ‘ছাত্রদল নেতা’, তিনজনের পদত্যাগ

ট্যাগঃ

আলোচিত সংবাদ