ঢাকা, শুক্রবার - ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আলোচিত সংবাদ

নিউইয়র্কে ৪০ লাখ ডলারের বাড়ির তথ্য গোপন নির্বাচনী হলফনামায়

ছবিঃ সংগৃহীত

Share on facebook
Share on whatsapp
Share on twitter
Share on linkedin

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাংসদ মো. আবদুস সোবহান গোলাপ যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরে ৪০ লাখ ডলার ব্যয়ে একাধিক বাড়ি কিনেছেন। বিষয়টি নির্বাচনী হলফনামায় তিনি উল্লেখ করেননি।

শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) অনুসন্ধানী সাংবাদিকদের বৈশ্বিক নেটওয়ার্ক ‘অর্গানাইজড ক্রাইম অ্যান্ড করাপশন রিপোর্টিং প্রজেক্ট’ বা ওসিসিআরপি তাদের ওয়েবসাইটে করা এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করেছে।

ওসিসিআরপি সূত্র বলছে, মোহাম্মদ আবদুস সোবহান মিয়া নিউইয়র্ক সিটিতে থাকাকালীন ছিলেন একজন ট্যাক্সি চালক, পিৎজা তৈরিকারক, এবং ওষুধের দোকানের ক্লার্ক হিসাবে কাজ করেছিলেন, কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহযোগী হিসাবে কাজ করার জন্য বাংলাদেশে ফিরে আসার কয়েক বছর পরে  তিনি গোপনে সম্পত্তি লুণ্ঠন শুরু করেন।

আরও পড়ুন  'আরাভ' নামে আমি কাউকে চিনি না: ড. বেনজীর

শুক্রবার প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০০৯ সালে তিনি শেখ হাসিনার “বিশেষ সহকারী” হিসাবে নিযুক্ত হন। তার পাঁচ বছর পর ২০১৪ সালে তিনি প্রথম নিউইয়র্কে অ্যাপার্টমেন্ট কেনা শুরু করেন। ওই বছর নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটস এলাকায় একটি সুউচ্চ ভবনে অ্যাপার্টমেন্ট কেনেন তিনি। পরের পাঁচ বছরে তিনি নিউইয়র্কে একে একে মোট ৯টি প্রপার্টির মালিক হন। এসব সম্পত্তির মূল্য ৪০ লাখ ডলারের বেশি (ডলারের বর্তমান বিনিময় মূল্য অনুযায়ী প্রায় ৪২ কোটি টাকা)।

মো. আবদুস সোবহান মিয়া ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে আওয়ামী লীগের মনোনয়নে মাদারীপুর-৩ আসন থেকে জাতীয় সংসদের সদস্য নির্বাচিত হন। গত ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের জাতীয় সস্মেলনে দলের কেন্দ্রীয় কমিটিতে তিনি প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদকের পদ পান। তিনি দলের কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদকও ছিলেন।

আরও পড়ুন  বাজার নিয়ন্ত্রণ নিয়ে সংসদে তোপের মুখে বাণিজ্যমন্ত্রী

সংসদ সদস্য মো. আবদুস সোবহান মিয়াকে নিয়ে ওসিসিআরপির করা প্রতিবেদনের বিষয়ে তাঁর বক্তব্য জানতে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, আমি এখন মাদারীপুরে নিজের নির্বাচনী এলাকায় আছি। শনিবার বিষয়টি ভালোভাবে জেনে তারপরে কথা বলব।

ওসিসিআরপির করা প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, ২০১৪ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসে পাঁচটি কনডোমিনিয়াম কিনেছিলেন আবদুস সোবহান। সে সময় ওই সম্পত্তির মূল্য ছিল প্রায় ২৪ লাখ ডলার। এ ছাড়া আশপাশের ভবনগুলোতে ৬ লাখ ৮০ হাজার ডলার মূল্যের তিনটি অ্যাপার্টমেন্ট কিনেছিলেন তিনি। নিউইয়র্কে কেনা এসব সম্পত্তির নথিপত্র বলছে, সম্পত্তিগুলো নগদ অর্থে কেনা হয়েছিল। এগুলোর মালিকানায় রয়েছেন তাঁর স্ত্রী গুলশান আরাও।

আরও পড়ুন  ডিমের ডজন ৬৫ টাকা

ওসিসিআরপির করা প্রতিবেদন অনুযায়ী, সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে আবদুস সোবহান নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসে আরও একটি সম্পত্তি (বাড়ি) কিনেছিলেন। ওই সম্পত্তির মূল্য ছিল প্রায় ১২ লাখ ডলার।

২০১৯ সালের ১৫ আগস্ট তিনি মার্কিন নাগরিকত্ব ত্যাগ করেছিলেন। এর সাত মাস আগে বাংলাদেশে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তিনি প্রতিবদনে জানান ওসিসিআরপি।

তথ্য সূত্র- ওসিসিআরপি

ট্যাগঃ

আলোচিত সংবাদ