ঢাকা, শনিবার - ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বাড়িওয়ালার পক্ষ থেকে ঈদ উপহার, ‘বাড়িভাড়া’ মওকুফ

ছবি- সংগৃহীত

Share on facebook
Share on whatsapp
Share on twitter
Share on linkedin

ঈদ উপলক্ষে এপ্রিল মাসের ভাড়া নিচ্ছেন না বাড়িওয়ালা। চিঠি দিয়ে বিষয়টি জানিয়েছেন ভাড়াটিয়াদের- এমন একটি পোস্ট ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

সোমবার (১ এপ্রিল) সকাল পৌনে ১০টার দিকে আলিমুর রহমান সুফল নামে এক ব্যক্তি ফেসবুকে পোস্টটি দেন। যদিও বিষয়টি নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে আলোচনা শুরু হলে দুপুরের পর থেকে পোস্টটি তার টাইমলাইনে পাওয়া যাচ্ছে না।

চিঠির একটি ছবিসহ পোস্টে তিনি লিখেন, ‌আমার বাড়িওয়ালার পক্ষ থেকে ঈদ উপহার। ঢাকা শহরে আমার এই ছোট্ট জীবনে কেউ কখনো এমন উপহার পেয়েছেন কিনা জানি না এবং শুনিনি কখনো; আমি অন্তত পাইনি। সম্পদের পাশাপাশি সুন্দর একটা আত্মা থাকাটাও জরুরি একজন প্রকৃত মানুষ হওয়ার জন্য। আল্লাহ উনাকে নেক হায়াত এবং দুনিয়া ও আখিরাতে উত্তম প্রতিদান দান করুন।

আরও পড়ুন  চকরিয়ায় সরকারি বই পাচারকালে দুই শিক্ষকসহ আটক ৫

প্রতিবেদন লেখার সময় পোস্টটি প্রায় তিন হাজার মানুষ শেয়ার করেছেন।

অনেকেই এতে মন্তব্য করে প্রতিক্রিয়া জানান। ঈদের আগে রমজানে এমন মহানুভবতা দেখানোর জন্য বাড়িওয়ালাকে প্রশংসায় ভাসান তারা। ছবিটি শেয়ার করে ভির সাহাবি নামে একজন লিখেছেন, ‘এই মানুষগুলোর মানসিকতা কী সুন্দর!!

নিত্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধিতে যখন জীবন যাত্রায় বাড়তি চাপ বাড়াচ্ছে এবং ঈদও আসন্ন, এমন সময় এক মাসের ভাড়া না নেয়া বা দেয়ার বিষয়টা মনে নিঃসন্দেহে বাড়তি আনন্দ যোগ করবে বৈকি। রূপালী হাউজিং কর্তৃপক্ষকে সাধুবাদ জানাই।

আরও পড়ুন  চট্টগ্রামে গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগ, যুবক গ্রেপ্তার

কেফায়েত শাকিল নামে একজন সংবাদমাধ্যমকর্মী বলেন, সেদিন টকশোতে বলেছিলাম, ‌ঢাকা শহরের সব বাড়িওয়ালা খারাপ নয়, তবে কতিপয় খারাপের দায় সবার ঘাড়ে যায়।’ ভালো বাড়িওয়ালার একটা উদাহরণ পেলাম।

ফেসবুক প্রোফাইল থেকে জানা গেছে, আলিমুর রহমান মাহিম ফ্যাশন হাউজ নামে একটি প্রতিষ্ঠানের হেড অব বিজনেস ডেভালপমেন্ট হিসেবে কর্মরত। তবে তার বাসাটি ঢাকার কোন এলাকায় তা স্পষ্ট করে বলা হয়নি পোস্টে। চিঠির ছবিতে শুধু ‘৬১ রুপালী হাউজিং’ উল্লেখ আছে।

আরও পড়ুন  সিএমপি’র মাসিক সভায় পুরস্কৃত হলেন ট্রাফিক-উত্তর বিভাগের ডিসি জয়নুল

ভাড়া মওকুফের বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিতে আলিমুর রহমানের ফোন নম্বর পেতে তার কর্মস্থলে যোগাযোগ করা হয়েছিলো। তবে তার কন্ট্যাক্ট নম্বর পাওয়ার আগেই ফেসবুক থেকে পোস্টটি সরিয়ে দেয়া হয়।

ট্যাগঃ