ঢাকা, শনিবার - ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বায়েজিদে বার্মা কলোনির ‘শীর্ষ সন্ত্রাসী সুমন’ গ্রেফতার

ছবি- সংগৃহীত

Share on facebook
Share on whatsapp
Share on twitter
Share on linkedin

চট্টগ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে প্রকাশ্যে ফাঁকা গুলি ছোড়া ও অস্ত্রের মহড়ার ঘটনায় ‘শীর্ষ সন্ত্রাসী’ মোহাম্মদ সুমন নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে নগরীর বায়েজিদ বোস্তামী থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাতে থানার অক্সিজেন বালুছড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত সুমন একই থানার বার্মা কলোনি এলাকার বাস্তহারা কলোনিতে থাকতেন। তিনি নয় বছর আগের দ্রুত বিচার আইনের একটি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি বলে জানায় পুলিশ।

আরও পড়ুন  বান্দরবানে পর্যটক ভ্রমণে ফের কেএনএফ’র কঠোর হুঁশিয়ারি

বায়েজিদ বোস্তামী থানার ওসি সঞ্জয় কুমার সিনহা বলেন, ২০১৫ সালে সুমনের বিরুদ্ধে আইনশৃঙ্খলা বিঘ্নকারী অপরাধের দায়ে দ্রুত বিচার আইনে একটি মামলা হয়। সেই মামলায় তাকে দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন আদালত। এরপর থেকেই পলাতক ছিলেন তিনি। এছাড়া হিলভিউ আবাসিক এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের জেরে অস্ত্রের মহড়ার ঘটনায় হওয়া মামলার অন্যতম আসামি সুমন। তার বিরুদ্ধে ১২টিরও বেশি মামলা রয়েছে।

আরও পড়ুন  হারুনের মাথায় 'নিউরো চিপ' বসিয়ে করা হয়েছিল 'মস্তিষ্ক হ্যাক'

ওসি আরও বলেন, হিলভিউতে অস্ত্রের মহড়ার মামলায় এখন পর্যন্ত ২০ জনের বেশি আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়া ওই মামলার কয়েকজন আসামি আদালতে আত্মসমর্পণও করেছেন। গ্রেফতারকৃত সুমনকে বুধবার আদালতে পাঠানো হয়েছে।

গত ১২ জানুয়ারি হিলভিউ এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের জেরে অস্ত্রের মহড়া দেয় স্থানীয় সন্ত্রাসীরা। ঐ সময় তাদের বাধা দিতে গিয়ে কিরিচের আঘাতে আহত হন আবদুল্লাহ আল মাহমুদ নামে স্থানীয় একজন। এ ঘটনার পর ১৪ জানুয়ারি অভিযান চালিয়ে ১৭ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাদের কাছ থেকে একটি খেলনা পিস্তল ও ১০টি কিরিচ উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে ২০ জানুয়ারি প্রকাশ্যে ফাঁকা গুলি ছোঁড়া মোহাম্মদ জাহিদকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তার কাছ থেকে ঘটনার দিন ব্যবহৃত অস্ত্রটি উদ্ধার করা হয়।

আরও পড়ুন  হাটহাজারীতে গৃহবধূর গলায় ফাঁস দেওয়া ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার