ঢাকা, শুক্রবার - ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

মেট্রোরেলের তালিকায় যুক্ত হলো উত্তরা সেন্টার স্টেশন

ছবিঃ সংগৃহীত

Share on facebook
Share on whatsapp
Share on twitter
Share on linkedin

পূর্ব নির্ধারিত ঘোষণা অনুযায়ী ধারাবাহিকভাবে খুলতে থাকা মেট্রোরেলের স্টেশনের তালিকায় যুক্ত হলো উত্তরা সেন্টার স্টেশন।

শনিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ৮টায় দিয়াবাড়ি থেকে ছেড়ে আসা ট্রেনটি উত্তরা সেন্টার অর্থাৎ দুই নম্বর স্টেশনে বিরতি নেয়। এখান থেকে যাত্রীরা মেট্রোরেলে ওঠানামা করতে পারবে। উত্তরা সেন্টার স্টেশন নিয়ে মোট চার স্টেশনে মেট্রোরেলের যাত্রী পরিবহন করা হচ্ছে।

এদিকে এ স্টেশন চালু হওয়ার মধ্য দিয়ে ভাগ্য খুলে গেলো দিয়াবাড়িতে নির্মিত উত্তরা তৃতীয় পর্বে গড়ে ওঠা রাজউক উত্তরা অ্যাপার্টমেন্ট প্রকল্পের বাসিন্দাদের। প্রকল্পের ব্যয় ৯ হাজার ৩০ কোটি টাকা। গড়ে উঠেছে ছয় হাজার ৬৩৬টি ফ্ল্যাট। এ ফ্ল্যাটের বাসিন্দারা মাত্র ১০ মিনিট পথ পায়ে হেঁটেই উত্তরা সেন্টার স্টেশনে যেতে পারবেন।

আরও পড়ুন  সংবিধান অনুযায়ী নিরপেক্ষ নির্বাচন করবে কমিশন: রাষ্ট্রপতি

রাজউক উত্তরা অ্যাপার্টমেন্ট প্রকল্পের পরিচালক মোহাম্মদ মোজাফফর উদ্দিন বলেন, মেট্রোরেলের পরিকল্পনা অনুযায়ী উত্তরা ১৮ নম্বর সেক্টরে আবাসন প্রকল্প নেওয়া হয়। আবাসনের বাসিন্দাদের মূল শহরে সংযোগ তৈরি করবে মেট্রোরেল। কারণ আবাসন এলাকা থেকে হেঁটে সহজেই রেলস্টেশনে যাতায়াত করা যাবে। ফ্ল্যাট বরাদ্দ শেষ পর্যায়ে।

তিনি আরও বলেন, উত্তরা সেন্টার স্টেশন চালু হওয়ায় প্রকল্পের সকল বাসিন্দাদের ভাগ্য খুলে গেলো। কারণ এ প্রকল্প এলাকা থেকে উত্তরা সেন্টার স্টেশনে যেতে মাত্র ১০ মিনিট সময় লাগবে, তাও আবার হেঁটে। মেট্রোরেল এ আবাসনের জন্য আশীর্বাদ। তবে বর্তমানে ৪ হাজার পরিবারের ১৬ হাজার মানুষ বসবাস করছে। অনেকে ব্যবসা করেন তারাও এ এলাকায় বসবাস করছেন।

আরও পড়ুন  নির্বাচনে ৪০ শতাংশ ভোট পড়েছে: সিইসি

ডিএমটিসিএল গত বৃহস্পতিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) এ তথ্য জানিয়েছিল। উত্তরা উত্তর স্টেশন থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত ১১ দশমিক ৭৩ কিলোমিটার রুটে মোট ৯টি স্টেশন রয়েছে। বর্তমানে আগারগাঁও, পল্লবী ও উত্তরা উত্তর স্টেশন- এ তিনটি স্টেশন চালু রয়েছে। উত্তরা সেন্টার স্টেশনটি খুলে যাওয়ায় চারটি স্টেশন উন্মুক্ত হলো। এরপর পর্যায়ক্রমে উত্তরা সাউথ, মিরপুর-১১, কাজীপাড়া ও শেওড়াপাড়া স্টেশন সাধারণ যাত্রীদের জন্য খুলে দেওয়া হবে।

ঢাকা শহরের যানজট এড়ানোর লক্ষ্যে সাড়ে ছয় বছর আগে উত্তরায় দেশের প্রথম মেট্রোরেলের নির্মাণযজ্ঞ শুরু হয়েছিল। গত বছরের ২৮ ডিসেম্বর মেট্রোরেল উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পর দিন ২৯ ডিসেম্বর থেকে বাণিজ্যিকভাবে যাত্রা শুরু করে মেট্রোরেল। এরপর থেকে মেট্রোরেল প্রতিদিন উত্তরা উত্তর (দিয়াবাড়ী) থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত সরাসরি চলাচল করছে।

আরও পড়ুন  গণতন্ত্র মঞ্চের নেতাদের যে নির্দেশনা দিলেন খালেদা জিয়া

২০১৭ সালের ৩ আগস্ট মেট্রোরেল প্রকল্পের পাইলিং কাজের উদ্বোধন করেন সড়ক, পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। রাজধানীর আগারগাঁওয়ে পরিসংখ্যান ভবনের সামনের সড়কে এর উদ্বোধন করা হয়।

এমআরটি লাইন-৬ এর উত্তরা উত্তর থেকে কমলাপুর পর্যন্ত দৈর্ঘ্য প্রায় ২২ কিলোমিটার (২১,২৬ কিলোমিটার)। এর মোট ব্যয় ৩৩ হাজার ৪৭২ কোটি টাকা। এর মধ্যে জাপানের আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সংস্থা-জাইকার ঋণ ১৯ হাজার ৭১৮ কোটি ৭০ লাখ টাকা।

ট্যাগঃ