ঢাকা, বৃহস্পতিবার - ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

পূর্ববর্তী শর্তে খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়িয়েছে সরকার

ছবিঃ সংগৃহীত

Share on facebook
Share on whatsapp
Share on twitter
Share on linkedin

পূর্ববর্তী শর্ত সাপেক্ষে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ ছয় মাস বাড়িয়েছে সরকার।

শনিবার (২৫ মার্চ) রাতে তার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান গণমাধ্যমকে এ কথা জানিয়েছেন। মন্ত্রী বলেছেন, এবারও বাসায় থেকে চিকিৎসা নেওয়া এবং বিদেশ যেতে না পারার দুটি শর্তই বহাল রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন  শেখ হাসিনার ৪৪তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ

যদিও খালেদা জিয়ার পরিবারের আবেদনে শর্ত শিথিল করে তাকে বিদেশে নিয়ে চিকিৎসার জন্য অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। গত ৬ মার্চ খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর ওই আবেদন করেছিলেন।

গতকাল শনিবার (২৫ মার্চ) বিএনপি নেত্রীর মুক্তির মেয়াদ শেষ হয়। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, দুই দিন আগে গত ২৩ মার্চ খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিত রেখে মুক্তির মেয়াদ আরও ছয় মাস বাড়ানোর প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

আরও পড়ুন  দলীয় নেতাকর্মীদের গুম-খুন ও গায়েবি মামলার তথ্য চায় বিএনপি

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে প্রায় দুই বছর জেলে ছিলেন। পরে সরকারের নির্বাহী আদেশে সাজা স্থগিত করে দুটি শর্তে খালেদা জিয়াকে মুক্তি ২০২০ সালের ২৫ মার্চ মুক্তি দেওয়া হয়। তখন দেশে করোনা মহামারি চলছিল। এরপর থেকে পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ছয় মাস অন্তর অন্তর তার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানো হচ্ছে। যদিও তার পরিবার ও দলের পক্ষ থেকে বারবার বিদেশে চিকিৎসা নেওয়ার সুযোগ চাওয়া হচ্ছে। কিন্তু সেই সুযোগ নেই বলে সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন  প্রধানমন্ত্রীর আসনেও ৮ প্রার্থী, বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতার সুযোগ নেই

ট্যাগঃ

আলোচিত সংবাদ

এ বিভাগের আরও

সর্বশেষ